Inadequate sleep causes weight gain
Reading Time: 3 minutes

মস্তিষ্কের, মস্তিষ্কের দ্বারা ও মস্তিষ্কের জন্য শক্তি চাঙ্গা করে তোলার একটি প্রক্রিয়া হল ঘুম’।1 আমরা আমাদের জীবনের এক-তৃতীয়াংশ ঘুমিয়ে কাটাই, তা সত্ত্বেও ঘুমের গুরুত্বকে প্রায়শই অবহেলার চোখে দেখা হয় বা ভুল বোঝা হয়। বেশিরভাগ মানুষই যেটা জানেন না সেটি হল পুষ্টিপদার্থ ও শরীরচর্চার সাথে, ঘুমও স্বাস্থ্যের একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ স্তম্ভ।2

ঘুম স্বাস্থ্যের পক্ষে বিশেষ জরুরী হলেও, ঘুমের সময় ধীরে ধীরে কমে যাওয়া খুবই সাধারণ ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। নতুন ডেডলাইন? পার্টি? মন খুলে দেখার মত কোনো নতুন শো? ঘুমই হল প্রথম জিনিস যার সাথে আমরা আপোষ করে থাকি। আধুনিক সমাজে ঘুম থেকে বঞ্চিত এমন ব্যক্তির সংখ্যা ধীরে ধীরে বাড়ছে।1 কাজের জায়গায় লক্ষ্য পূরণের তাড়াহুড়ো, শহুরে জীবনযাত্রা, শিফ্টে কাজ করা, ছোট ছোট পরিবার এবং কাজের জায়গায় দীর্ঘক্ষণ ধরে যাতায়াত করা এই সব থেকেই আমাদের ঘুমের ধাঁচ বিঘ্নিত হতে থাকে।3

এমন প্রমাণ আকছার পাওয়া যাচ্ছে যে যেসব মানুষ অপর্যাপ্ত ঘুমোন তাঁদের ওজন বাড়া ও মাত্রাতিরিক্ত ওজনে পৌঁছনোর ঝুঁকি সর্বোচ্চ।4 ওজন বাড়া ঠেকাতে কেন রাত্রে ভালো করে ঘুমোনো জরুরী তা জানতে নীচের অংশটি পড়ুন।

অপর্যাপ্ত ঘুম থেকে কীভাবে আমার ওজন বাড়তে পারে?

গবেষকরা প্রমাণ করে দিয়েছেন যে অপর্যাপ্ত ঘুম থেকে বিভিন্ন উপায়ে ওজন বাড়তে পারে। আমরা মোটামুটি এটা বলতেই পারি যে শক্তি গ্ররহণ বাড়িয়ে দিয়ে বা শক্তি খরচ কমিয়ে দিয়ে অপর্যাপ্ত ঘুম থেকে ওজন বাড়তে পারে।

অপর্যাপ্ত ঘুম থেকে নিম্নলিখিতভাবে শক্তি গ্রহণ বেড়ে যায়:4

  1. ক্ষিদে বেড়ে যাওয়া: অপর্যাপ্ত ঘুম ক্ষিদে নিয়ন্ত্রণকারী হরমোনগুলিকে পরিবর্তিত করে দেয়। তরুণদের মধ্যে করা একটি গবেষণায় দেখা গেছে যেসব তরুণ অপর্যাপ্ত ঘুমোন তাঁদের ক্ষিদে উদ্দীপিত করা হরমোনগুলির স্তর বেশি ও সন্তুষ্টি-উদ্রেককারী হরমোনের মাত্রা কম।
  2. জেগে থাকার জন্য আরও বেশি সময় উপলব্ধ করে: যেসব ব্যক্তি রাত্রে কম ঘুমোন তাঁদের হাতে রাত্রে ঘুমোনো ব্যক্তিদের তুলনায় সময় বেশি থাকে। ঘুম থেকে বঞ্চিত ব্যক্তিরা আরও বেশি টুকিটাকি খেতে থাকেন, বিশেষ করে রাত্রে জেগে থাকলে তো বটেই।
  3. অস্বাস্থ্যকর খাদ্যগ্রহণ বাড়িয়ে তোলে: জাপানে করা একটি গবেষণায় দেখা গেছে যেসব কর্মচারী ছয় ঘন্টার থেকে কম ঘুমোন তাঁদের বাইরের খাবার, স্ন্যাক্স ও অনিয়মিত খাবার খাওয়ার প্রবণতা ছয় ঘন্টার বেশি ঘুমোন এমন কর্মচারীদের থেকে বেশি।

অপর্যাপ্ত ঘুম হয়তো শক্তি খরচ কমিয়ে দিতে পারে:4

  1. শারীরিক কার্যকলাপ কমে যাওয়া:যেসব ব্যক্তি রাত্রে কম ঘুমোন তাঁরা সারা দিন ভর আরও বেশি ক্লান্ত হয়ে পড়বেন এবং কোনো শারীরিক কার্যকলাপে অংশগ্রহণ এড়িয়েও চলতে চাইবেন। গবেষকরা দেখেছেন যে যেসব ব্যক্তি ঘুম থেকে বঞ্চিত হন তাঁদের কোনো সংঘবদ্ধ খেলা ও শারীরিকভাবে সক্রিয় থাকার সময় কমে যায় এবং টেলিভিশন দেখার জন্য বেশি সময় ব্যয়িত হয়।
  2. শরীরের তাপমাত্রা কমে যায়: পরীক্ষাগারে চালানো বিভিন্ন পরীক্ষায় লক্ষ্য করা গেছে যে যেসব ব্যক্তি ঘুম থেকে বঞ্চিত হন তাঁদের শরীরের তাপমাত্রা কমে যায়। গবেষকরা এও অনুমান করেছেন যে এটি শরীরের শক্তি ক্ষয়ও কমিয়ে দেয়।

গবেষণা থেকে প্রাপ্ত বর্তমান প্রমাণগুলিতে এই প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছে যে যেসব ব্যক্তির ওজন বাড়ার ও মোটা হওয়ার ঝুঁকি আছে তাঁদের ভালো করে ঘুমোনোর অভ্যাস গড়ে তোলা উচিত।1

আপনার আদর্শ কত ঘন্টা ঘুমোনো উচিত?

ন্যাশনাল স্লিপ ফাউন্ডেশন, ইউএস-এর মতে, প্রত্যেক ব্যক্তির শরীর সর্বানুকূলভাবে কাজ করার জন্য রাত্রে সাত থেকে নয় ঘন্টা ঘুমোনোর দরকার হয়।5 দীর্ঘকাল ধরে অপর্যাপ্ত ঘুম থেকে স্বাস্থ্যের গুরুতর সমস্যা আসতে থাকে, যার মধ্যে একটি হল মাত্রাতিরিক্ত ওজন বাড়া।6

আরও ভালো করে ঘুমোনোর পরামর্শ

রাত্রে ভালো করে ঘুমোনোর জন্য আমরা আপনাকে নিম্নলিখিত অভ্যাসগুলি করার পরামর্শ দেব:6,7

  • সারা দিন পর্যাপ্ত শারীরিক কার্যকলাপ করুন।
  • ঘুমোতে যাওয়ার অন্ততঃ তিন ঘন্টা আগে শরীরচর্চা করা বন্ধ করুন।
  • রাত্রিবেলায় ক্যাফিন থেকে দূরে থাকুন। ক্যাফিন, যা কিনা চা, কফি, চকোলেট ও সোডায় থাকে, তা আপনাকে জাগিয়ে রাখতে পারে।
  • ঘুমোতে যাওয়ার আগে ভরপেট খাবার খাবেন না। বেশি খেলে আপনাকে জেগে থাকতে হতে পারে।
  • ঘুমোতে যাওয়ার আগে টেলিভিশন দেখবেন না বা মোবাইল বা কম্পিউটার ব্যবহার করবেন না। এই ডিভাইসগুলি থেকে আসা আলো ঘুমোনোর পক্ষে অসুবিধা সৃষ্টি করতে পারে।
  • ঘুমোতে যাওয়ার সময়ের একটি রুটিন তৈরী করে নিন। বিভিন্ন ব্যক্তি ঘুমোতে যাওয়ার জন্য বিভিন্ন পদ্ধতি অবলম্বন করে থাকেন। কেউ দিনের শেষে বই পড়তে পারেন, আবার কেউ কেউ গান শুনতে পারেন, আবার কেউ কেউ ঘুমে সাহায্য হবে বলে একটু গরম জলে স্নান করে নিতে পারেন।
  • ঘুমোনোর জন্য একটি নির্দিষ্ট সময় মেনে চলুন: আপনার ঘুমোনোর ও ঘুম থেকে ওঠার একটি নির্দিষ্ট সময় ঠিক করে নিন এবং এমনকি সপ্তাহান্তেও সেই সময়গুলি মেনে চলুন।

ওজন বাড়া রোধ করা ছাড়াও, ভালো ঘুমের অভ্যাস আপনার মেজাজ ভালো রাখতে পারে, সতর্কতা বাড়াতে পারে এংব সামগ্রিকভাবে জীবনের মান উন্নত করতে পারে।4

ঘুম, যা হয়তো একমাত্র এবং সবথেকে নিষ্ক্রিয় কাজ, যেটি আপনাকে ওজন বাড়ার হাত থেকে রক্ষা করে!

তথ্যসূত্র:

  1. Beccuti G, Pannain S. Sleep and obesity. Curr Opin Clin Nutr Metab Care. 2011 Jul;14(4):402-412. doi: 10.1097/MCO.0b013e3283479109.
  2. Harvard Medical School. About the Healthy Sleep Web Site [Internet]. [cited 2019 Nov 19]. Available from: http://healthysleep.med.harvard.edu/healthy/about.
  3. National Health Portal. Sleep deprivation [Internet]. [updated 2016 Aug 04; cited 2019 Nov 19]. Available from: https://www.nhp.gov.in/Sleep-Deprivation_mtl.
  4. Harvard T.H. Chan School of Public Health. Obesity Prevention Source: Sleep [Internet]. [cited 2019 Nov 19]. Available from: https://www.hsph.harvard.edu/obesity-prevention-source/obesity-causes/sleep-and-obesity/.
  5. National Sleep Foundation. How much sleep do we really need? [Internet]. [cited 2019 Nov 19]. Available from: https://www.sleepfoundation.org/articles/how-much-sleep-do-we-really-need.
  6. Centers for Disease Control and Prevention. How does sleep affect your heart health [Internet]. [updated 2018 Dec 03; cited 2019 Nov 19]. Available from: https://www.cdc.gov/features/sleep-heart-health/index.html.
  7. National Institute on Ageing. A good night’s sleep [Internet]. [updated 2016 May 01; cited 2019 Nov 19]. Available from: https://www.nia.nih.gov/health/good-nights-sleep.

Loved this article? Don't forget to share it!

Disclaimer: The information provided in this article is for patient awareness only. This has been written by qualified experts and scientifically validated by them. Wellthy or it’s partners/subsidiaries shall not be responsible for the content provided by these experts. This article is not a replacement for a doctor’s advice. Please always check with your doctor before trying anything suggested on this article/website.