Reading Time: 3 minutes

অশ্বিনী এস কানাড়ে, রেজিস্টার্ড ডায়েটিশিয়ান এবং প্রত্যয়িত বিশিষ্ট ডায়াবেটিস শিক্ষাবিদ তাঁর 17 বছরের অভিজ্ঞতা সহ এটির বিশেষজ্ঞপর্যালোচনা করেছেন জনস্বাস্থ্য স্বাস্থ্যঅর্থনীতির মাননীয় আদিত্য নার, বি. ফারম, এমএসসি এই প্রবন্ধের বিষয়বস্তু পরীক্ষা করেছেন।

নতুন ওষুধের সফল আবিষ্কার, এবং এর উৎপাদন ও বিপণন এমন এক প্রকার সময়-ব্যয়কারক পদ্ধতি যে এতে যে কোনোভবেই 10 থেকে 15 বছর পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই যে, সাম্প্রতিক সময়ে, অনেক গবেষণা স্থানীয় প্রাকৃতিক ওষুধের অধ্যয়নের উপর আলোকপাত করে, যা ইতিমধ্যে কোনো এক নির্দিষ্ট স্থানের অধিবাসীরাই ব্যবহার করেছে।

তামিলনাড়ুর দুই গবেষক 2012 সালে ডায়াবেটিস রোগের চিকিৎসার জন্য কোল্লি পাহাড়ে (তামিলনাড়ুর নামাককাল জেলায় অবস্থিত) প্রথাগতভাবে উপজাতীয়রা ব্যবহার করত এমন নানা ধরনের উদ্ভিদ নিয়ে গবেষণা চালিয়েছিলেন। ব্যাপক অনুসন্ধানের ফলে কেউকন্দ (হিন্দি ভাষায়) বা কোস্তাম (তামিল ভাষায়) এর পাতা এক আকর্ষণীয় সন্ধান হিসাবে পাওয়া গিয়েছিল।(1)

মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকায় এই গাছটি স্থানীয় দেশজ উদ্ভিদ হিসাবে পরিচিত এবং বেশ অনেক পরে কোনো রকমভাবে শুধুমাত্র ভারতে চলে এসেছিল। কিন্তু একবার এটির সন্ধান পাওয়ার পরে, সম্ভবত একপ্রকার কার্যকর ডায়াবেটিস ঔষধ হিসাবে মুখে মুখে প্রচারের কারণে, এটি “ইনস্যুলিন উদ্ভিদ” হিসাবে ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।

ব্যাপারটা বোঝা গেল, কিন্তু এই বিষয়ে বিজ্ঞান কী মতামত দিচ্ছে?

এই ইনসুলিন উদ্ভিদের ডায়াবেটিস-নিয়ন্ত্রণের প্রভাব সত্যিই রয়েছে কিনা তা পরীক্ষা করতে প্রচুর গবেষণা করা হয়েছে: প্রাণী ও প্রাণীর কোষ-কলায় 17টি বিভিন্ন ধরনের অধ্যয়ন তথা গবেষণায় দেখানো হয়েছে যে ইনসুলিন উদ্ভিদের পাতা থেকে পাওয়া নির্যাস ব্যবহারের পর রক্তের গ্লুকোজ মাত্রা কমাতে তা সত্যিই সফল হয়েছে।(2)

নিয়মিত ইনস্যুলিন ব্যবহার করে চিকিৎসা হিসাবে, এটি সম্পর্কে আপনার যা জানা দরকার তা এখানে দেওয়া হল।

এটা তো ঠিক আছে …তবে গবেষণায় মানব-দেহের উপরে এর কী প্রভাব পাওয়া গেছে?

এখন, এই গবেষণার বিষয়ে বলা যায় এটি এখনও সম্পূর্ণভাবে আয়ত্ত্বে আসেনি। এখনও অবধি, ভারতের মণিপালে স্থিত কস্তুরবা মেডিকেল কলেজের ডায়াবেটিস রোগীদের নিয়ে মাত্র একটিই অধ্যয়ন পরিচালনা করা হয়েছে। ওই অধ্যয়ন ও গবেষণায় দেখা গেছে যে ইনস্যুলিন গাছের একটি তাজা পাতা বা চায়ের চামচের 1 চামচ পরিমাণ ওই গাছেরই শুকনো পাতা গুঁড়ো করে প্রতিদিন চিবিয়ে খেলে তা ডায়াবেটিস রয়েছে এমন ব্যক্তিদের রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। এই গবেষণার লেখক পরামর্শ দিয়েছেন যে, যেহেতু তাঁরা ইনস্যুলিন গাছের পাতা লাগাতার 15 দিন ব্যবহারের পর থেকে রোগীদের মধ্যে এর কার্যকর প্রভাবগুলি লক্ষ্য করেছিলেন, অতয়েব এই গাছের পাতার আদৌ কোনো ওষধি এবং উপকারী প্রভাব আছে কিনা তা দেখতে এটি নিয়মিতভাবে সেবন করা দরকার।(3)

এবং এখনও পর্যন্ত…

আপনি আপনার স্থানীয় নার্সারিতে ইনস্যুলিন গাছ খুঁজে দেখার আগে, এই একই বিষয়ে অন্য একটি গবেষণা-লব্ধ ফলের বিবেচনা করাও আপনার জন্য আবশ্যক। ইনস্যুলিন গাছের পাতাগুলি নিয়ে করা একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে এতে বেশ বেশি পরিমাণেই পামিটিক অ্যাসিড রয়েছে। এই পদার্থের বেশ ক্ষতিকর প্রভাব আছে বলেই জানা গিয়েছে, যেমন ইঁদুরের হৃৎ-পেশীর কোষের পক্ষে এটি ক্ষতিকারক এবং মানুষের ক্ষেত্রে এটি “ক্ষতিকর” (LDL) কোলেস্টেরল বৃদ্ধি করে থাকে বলে পরিচিত। সুতরাং, এই গবেষণায় নিযুক্ত গবেষকরা ওষুধ হিসাবে দীর্ঘ সময় ধরে এই ইনস্যুলিন উদ্ভিদের অবিরাম ব্যবহারের বিরুদ্ধেই পরামর্শ দিয়েছেন।(4)

অতএব, এই বিষয়ে আরও গবেষণার প্রয়োজন যাতে এটি মানুষের পক্ষে নিরাপদ তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি রক্তের গ্লুকোজের উপর ইনস্যুলিন গাছের ইতিবাচক প্রভাবও নিশ্চিত করে। এই প্রাকৃতিক প্রতিকারের ব্যবহার-যোগ্য অবস্থায় পৌঁছানোর আগে, সেই নিশ্চিত-ক্ষণ আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করাই ভালো।

আপনি আপনার ডায়াবেটিস রোগ নিয়ন্ত্রণের প্রাকৃতিক উপায়গুলি সন্ধান করতে চাইলে তবে এখানে চারটি গবেষণা-সমর্থিত ঘরোয়া প্রতিকার রয়েছে যেগুলি আপনি চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

তথ্যসূত্র:

  1. Elavarasi, K. Saravanan. Ethnobotanical Study of Plants used to treat Diabetes by Tribal People of Kolli Hills, Namakkal District, Tamil Nadu. International Journal of PharmTech Research · March 2012 Available online at: https://www.researchgate.net/profile/Saravanan_K3/publication/256296150_Ethnobotanical_Study_of_Plants_used_to_treat_Diabetes_by_Tribal_People_of_Kolli_Hills_Namakkal_DistrictTamilnadu_Southern_India/links/0c960522346df3d3f5000000/Ethnobotanical-Study-of-Plants-used-to-treat-Diabetes-by-Tribal-People-of-Kolli-Hills-Namakkal-District-Tamilnadu-Southern-India.pdf
  2. L. Hegde, H.A. Rao, P.N. Rao. A review on Insulin plant (Costus igneus Nak). Pharmacognosy Review. 2014; 8(15); 74-72 DOI: 10.4103/0973-7847.125536 Available online at: http://www.phcogrev.com/article.asp?issn=0973-7847;year=2014;volume=8;issue=15;spage=67;epage=72;aulast=Hegde
  3. J. Shetty, S.M. Parampalli, R. Bhandarkar, S. Kotian. Effect Of The Insulin Plant ( Costus Igneus ) Leaves On Blood Glucose Levels In Diabetic Patients: A Cross Sectional Study. Journal of Clinical and Diagnostic Research. 2010, June; 4(3); 2617 – 2621
  4. Jose, L.J. Reddy. Analysis Of The Essential Oils Of The Stems, Leaves And Rhizomes Of The Medicinalplant Costus Pictus From Southern India. International Journal of Pharmacy and Pharmaceutical Sciences. 2010; 2(2) Available online at: http://www.ijppsjournal.com/Vol2Suppl2/533.pdf

 

Loved this article? Don't forget to share it!

Disclaimer: The information provided in this article is for patient awareness only. This has been written by qualified experts and scientifically validated by them. Wellthy or it’s partners/subsidiaries shall not be responsible for the content provided by these experts. This article is not a replacement for a doctor’s advice. Please always check with your doctor before trying anything suggested on this article/website.