Reading Time: 2 minutes

কেটো, অ্যাটকিনস, পালেও, কম শর্করাযুক্ত, উচ্চ মাত্রায় প্রোটিনযুক্ত ইত্যাদি নানা ধরণের খাদ্যাভ্যাস আছে যেগুলোর দাবি, তারা শুধু ওজন কমানোর ব্যাপারেই নয়, এমনকী রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতেও সাহায্য করে। এইসব প্রচলিত উপায়গুলি কি টাইপ 2 ডায়াবেটিসের পক্ষেও কার্যকরী হবে? প্রচুর গবেষণায় দেখা গেছে যে, কম শর্করাযুক্ত খাদ্যাভ্যাস ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। এর সত্যতা যাচাই করতে আমরা ফিটার ফ্যাডের মালিক পুষ্টিবিদ বিভা পুরিকে অনুরোধ করেছিলাম এই বিষয়ে আমাদের সঙ্গে তাঁর মতামত ভাগ করে নিতে এবং ডায়াবেটিসের রোগীরা মেনে চলতে পারেন এরকম একটা কম শর্করাযুক্ত খাদ্যতালিকার নমুনা দিতে।

লক্ষ্য রাখুন যাতে আপনার খাবার আপনাকে দিনে 20 থেকে 90 গ্রাম পর্যন্ত শর্করা প্রদান করে। এটি রক্তের শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখার উপযোগী বলে ইতিমধ্যেই প্রমাণিত। তবে, একেকজন মানুষের ক্ষেত্রে একেক পরিমাণ পরিমাণ শর্করা প্রয়োজন হতে পারে, কারণ শর্করার প্রতি প্রত্যেকটা মানুষের প্রতিক্রিয়া আলাদা আলাদা হয়। আপনার জন্য শর্করার আদর্শ পরিমাণ কী, তা ঠিক করতে খাওয়ার আগে নিজের রক্তের শর্করার মাত্রা মাপা দরকার, আর খাওয়ার 1 থেকে 2 ঘন্টা পরে আবার মাপা দরকার। বিভার মতে, আপনার খাদ্যতালিকা থেকে শর্করাকে পুরোপুরি বিদায় দেওয়ার বদলে বরং শাক-সব্জি, বিভিন্ন রকম বেরি, বাদাম ও বীজ ইত্যাদি ফাইবার সমৃদ্ধ শর্করার পুষ্টিগুণে ভরপুর কম শর্করাযুক্ত সুষম খাদ্যতালিকা মেনে চলা উচিৎ।

আপনার কম শর্করাযুক্ত খাদ্যতালিকাটি এইরকম দেখতে হবে:

1. সকালে উঠে- সারারাত ধরে জলে মেথি ভিজিয়ে রাখুন। সকালে জলটা ছেঁকে খেয়ে ফেলুন।
2. জলখাবার- ডিমের সাদা অংশ(3)/সব্জি দিয়ে ডিমভাজা, সরতোলা ঠান্ডা দুধের কফি এবং দুটো আখরোট।
3. দুপুরের খাবার- বেসন ও লাল আটা মিশিয়ে বানানো রুটি, তার সঙ্গে ডাল, শাক, দই আর সবুজ স্যালাড।
4. রাতের খাবার- পনির টিক্কা ও চিনি ছাড়া তাজা লেবুর শরবৎ।

যেসব খাবার এড়িয়ে চলবেন:

এইসব খাবারে প্রচুর পরিমাণে শর্করা থাকে, তাই এগুলো ডায়াবেটিসের রোগীদের রক্তের শর্করার মাত্রা এক ঝটকায় বাড়িয়ে দিতে পারে।

– পাঁউরুটি, পাস্তা, ভুট্টা এবং অন্যান্য শস্যজাত খাবার।
– শ্বেতসারযুক্ত সব্জি যেমন আলু, রাঙালু, ওল, কচু
– মটর, ডাল, বীনের মত সব্জি ( সবুজ বীন আর মটরশুঁটি ছাড়া)
– দুধ
– বেরি ছাড়া অন্যধরণের ফল।
– ফলের রস, সোডা, মিশ্রিত শরবৎ বা চিনি দেওয়া চা।
– বিয়ার এবং অন্যান্য অ্যালকোহলজাত পানীয়
– মিষ্টি বা আইস ক্রিম

Loved this article? Don't forget to share it!

Disclaimer: The information provided in this article is for patient awareness only. This has been written by qualified experts and scientifically validated by them. Wellthy or it’s partners/subsidiaries shall not be responsible for the content provided by these experts. This article is not a replacement for a doctor’s advice. Please always check with your doctor before trying anything suggested on this article/website.